ঢাকা,বাংলাদেশ

lutfor@firstaidforhealth.com

দ্রুত যোগাযোগ

মেনিনজাইটিস এর লক্ষণ ও প্রাথমিক চিকিৎসা

Category Tags


আমবাত কেন হয় আমবাতের কারণ ও চিকিৎসা আর্টিকেরিয়ার চিকিৎসা কান পাকা ড্রপ কান পাকা বা মধ্যকর্ণের প্রদাহ কান পাকা রোগের এন্টিবায়োটিক কান পাকা রোগের ঔষধের নাম কান পাকা রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা কান পাকা রোগের ড্রপের নাম কানে পুঁজ হলে করনীয় কানের ড্রপ এর নাম কিডনির পাথর প্রতিরোধের উপায় ও চিকিৎসা কিডনির পাথরের লক্ষণ কোষ্ঠকাঠিন্য কি খেলে ভালো হয় কোষ্ঠকাঠিন্য কেন হয় কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার উপায় কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার ঘরোয়া উপায় ক্ষুধামন্দা কেন হয় খাদ্যে বিষক্রিয়া হলে করণীয় খাবারে অরুচি হলে করনীয় চর্ম রোগ চর্ম রোগের ঔষধের নাম চর্ম রোগের চিকিৎসা চর্ম রোগের প্রকারভেদ টনসিলাইটিস এর চিকিৎসা পিরিয়ডের ব্যথা কমানোর উপায় পুড়ে গেলে ঘরোয়া চিকিৎসা পোড়া ক্ষত শুকানোর ঔষধ পোড়ার জ্বালা কমানোর উপায় বাত ব্যাথার ঔষধের নাম বাত ব্যাথার চিকিৎসা বাত রোগের কারন বাতের ব্যথার লক্ষণ বিষক্রিয়া কত প্রকার বিষক্রিয়া কাকে বলে বিষক্রিয়ার প্রাথমিক চিকিৎসা বিষক্রিয়ার লক্ষণ বিষক্রিয়ার চিকিৎসা ও করণীয় মাসিকের ঔষধের নাম মাসিকের ব্যাথার কারন মাসিকের সময় পেটে ব্যাথার ঔষধ মিনি স্ট্রোক এর লক্ষণ হার্ট এটাক এর কারণ হার্ট এর ঔষধ হার্ট ব্লক হওয়ার লক্ষণ

মেনিনজাইটিস কেন হয়

মেনিনজাইটিস হলো মেনিন্জ অংশের সংকোচন বা অসুস্থতা, যা মেনিনজেস হলো মস্তিষ্কের একটি মেমব্রেন বা কোষের একটি সারিকা। রোগটি মূলত ব্যক্তির মেনিনজেসের অসুস্থতা হতে পারে এবং এটি জীবাণু, ভাইরাস, বা অন্যান্য কারণেও হতে পারে। 

ব্রেনের উপর একটি পর্দা বা আবরণ আছে,এটিকে মেনিনজেস বলে।  মেনিনজেস এর প্রদাহকে(inflammation) মেনিনজাইটিস বলা হয়। 

রোগের প্রকারভেদ 

পাইওজেনিক মেনিনজাইটিস (Pyogenic meningitis)

টিউবারকুলার মেনিনজাইটিস (Tubercular meningitis)

ভাইরাল মেনিনজাইটিস (Viral meningitis)

রোগের লক্ষণ ও উপসর্গ 

মাথা ব্যাথা এবং স্বল্পতা: শিরশ্রাবণে ব্যাথা এবং স্বল্পতা হতে পারে, যা মৌলিক লক্ষণের মধ্যে একটি।


উচ্চ তাপমাত্রা: এ রোগে  উচ্চ তাপমাত্রা বা জ্বর হতে পারে।

শিরশ্রাবণে চোখের আগার এবং অবস্থানে ব্যাথা: চোখের আগার এবং অবস্থানে ব্যাথা হতে পারে এবং এটি হাতে এবং শিরশ্রাবণে পৌঁছাতে পারে।


শরীরে অস্বস্তি এবং ব্যথা: এ রোগ হলে শরীরে অস্বস্তি এবং ব্যথা হতে পারে, যা মৌলিক লক্ষণের একটি।


এ রোগটি একটি গম্ভীর অবস্থা হতে পারে এবং তা দ্রুত চিকিৎসা প্রয়োজন করে। যদি কেউ এ রোগ আক্রান্ত হয়, তাদেরকে অতি দ্রুত চিকিৎসা প্রদান করতে একটি চিকিৎসকে দেখাতে বা হাসপাতালে যেতে উত্সাহিত করতে হবে।

জটিলতাঃ (Complications)

  • হাইড্রসেফালাস। 
  • কর্টিকাল স্নায়ুর প্যারালাইসিস। 
  • মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলা। 
  • সেরিব্রাল  প্যারালাইসিস। 

 চিকিৎসা

পাইওজেনিক মেনিনজাইটিস (Pyogenic meningitis)

  • ব্রড স্পেকট্রাম এন্টিবায়োটিক যেমন –
  • a. inj penicilin ৩-৪ লাখ /kg /day  বিভক্ত মাত্রায়। 
  • b. inj – ampicilin  ২০০-৪০০ mg /kg /day শিরায়। 
  • পুষ্টি ঠিকমত দিতে হবে। 
  • ভালোভাবে রোগীর যত্ন নিতে হবে। 
  • খিঁচুনি হলে inj – diazipam .
  • কোন জটিলতা হলে corticosteroid .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *